পিপস (Pips)

পিপস (Pips) (পর্ব -১০)

পিপস (Pips)

ফরেক্স ট্রেডিংয়ে সাফল্য অর্জনের জন্য কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় বুঝে নেওয়া অত্যন্ত জরুরি। এর মধ্যে পিপ (Pip) এবং লিভারেজ, লট, লাভ এবং লস উল্লেখযোগ্য।

#### পিপ (Pip) কি?

পিপ (Pip) হলো ফরেক্স মার্কেটে মুদ্রা পেয়ার এর মূল্য পরিবর্তনের সবচেয়ে ছোট একক। এটি মুদ্রা পেয়ার এর জন্য সাধারণত দশমিকের পর চতুর্থ সংখ্যা স্থানকে নির্দেশ করে। উদাহরণস্বরূপ, যদি EUR/USD ১.৫০৩০ থেকে ১.৫০৩১ এ পরিবর্তিত হয়, তাহলে এই পরিবর্তনটিকে ১ পিপ বলা হয়।

পিপের সংজ্ঞা নির্ভর করে মুদ্রা পেয়ার এর ধরনে। সাধারণত বেশিরভাগ মুদ্রা পেয়ার চার দশমিক স্থান (four decimal places) পর্যন্ত মান প্রদর্শন করে। তবে কিছু মুদ্রা পেয়ার দুই দশমিক স্থান (two decimal places) পর্যন্তও প্রদর্শন করতে পারে, যেমন USD/JPY।

উদাহরণ:

  • EUR/USD: ১ পিপ = ০.০০০১
  • USD/JPY: ১ পিপ = ০.০১

পিপেট (Pipette) কি?

পিপেট (Pipette) হলো পিপের একটি ক্ষুদ্রতম একক, যা দশমিকের পর পঞ্চম সংখ্যা স্থানকে নির্দেশ করে। এটি মূলত ফ্র্যাকশনাল পিপ হিসেবেও পরিচিত।

পিপেট ব্যবহার করার উদ্দেশ্য হলো মূল্য পরিবর্তনের আরও সুনির্দিষ্ট পরিমাপ প্রদান করা। অনেক ব্রোকার ফ্র্যাকশনাল পিপ বা পিপেট ব্যবহার করে, যা ৫ ডিজিটের দশমিক স্থান প্রদর্শন করে।

উদাহরণ:

  • যদি EUR/USD ১.৫০৩০১ থেকে ১.৫০৩০২ এ পরিবর্তিত হয়, তাহলে এই পরিবর্তনটিকে ১ পিপেট বলা হয়।

#### ফ্র্যাকশনাল পিপ

জাপানী মুদ্রা জুটির ক্ষেত্রে পিপ ভিন্নভাবে গনণা করা হয়। এখানে মুদ্রার মান ২ দশমিক স্থান পর্যন্ত ধরা হয়। যেমন USD/JPY যদি ১১৯.৫২ থেকে ১১৯.৫১ তে যায়, তাহলে একে ১ পিপ ধরা হবে। কিছু ব্রোকার ৪ ডিজিটের পরিবর্তে ৫ ডিজিটে মুদ্রার মান দেখায়। এই অতিরিক্ত দশমিক স্থানকে ফ্র্যাকশনাল পিপ বা পিপেট বলা হয়

 

পিপ্স এবং পিপেটের উদাহরণ

EUR/USD:
  • পিপ: ১.২০৩০ থেকে ১.২০৩১ তে পরিবর্তন হলে ১ পিপ।
  • পিপেট: ১.২০৩০১ থেকে ১.২০৩০২ তে পরিবর্তন হলে ১ পিপেট।
USD/JPY:
  • পিপ: ১১০.২৫ থেকে ১১০.২৬ তে পরিবর্তন হলে ১ পিপ।
  • পিপেট: ১১০.২৫১ থেকে ১১০.২৫২ তে পরিবর্তন হলে ১ পিপেট।

পিপ্স এবং পিপেট কিভাবে কাজ করে?

পিপ এবং পিপেট ট্রেডারদের মুদ্রার মান পরিবর্তনের সূক্ষ্ম বিশ্লেষণ করতে সহায়তা করে। পিপ ভ্যালু এবং পিপেট ভ্যালু গনণা করতে হলে অবশ্যই মুদ্রা পেয়ার এর এক্সচেঞ্জ রেট এবং লট সাইজ জানার প্রয়োজন হয়।

উদাহরণ:

  • EUR/USD এর এক্সচেঞ্জ রেট ১.২০০০ হলে এবং আপনি ১০,০০০ ইউনিট (এক মিনি লট) ট্রেড করছেন, তাহলে:
    • ১ পিপ পরিবর্তন হলে এর মান হবে $১ (১০,০০০ ইউনিট * ০.০০০১)।
    • ১ পিপেট পরিবর্তন হলে এর মান হবে $০.১০ (১০,০০০ ইউনিট * ০.০০০০১)।

পিপ্স এবং পিপেট ব্যবহারের গুরুত্ব

  • ট্রেডিং স্ট্রাটেজি: পিপ্স এবং পিপেটের সঠিক বিশ্লেষণ একজন ট্রেডারকে ট্রেডিং স্ট্রাটেজি তৈরিতে সহায়তা করে।
  • মুনাফা এবং ক্ষতি হিসাব: পিপ্স এবং পিপেটের ভিত্তিতে মুনাফা এবং ক্ষতি নির্ধারণ করা হয়।
  • বাজার বিশ্লেষণ: মূল্য পরিবর্তনের সূক্ষ্ম বিশ্লেষণ পিপ এবং পিপেটের মাধ্যমে করা যায়, যা বাজারের প্রবণতা বুঝতে সাহায্য করে।

এই সব তথ্যগুলো ফরেক্স ট্রেডিংয়ের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং একজন ট্রেডারকে সফলভাবে ট্রেডিং করার জন্য সাহায্য করে।

Discount on The5ers

#### পিপ ভ্যালু কিভাবে গনণা করবেন?

পিপ ভ্যালু গনণা করার জন্য প্রথমে বুঝতে হবে মুদ্রা জুটির মধ্যে কোনটি বেস কারেন্সি। উদাহরণস্বরূপ, যখন USD বেস কারেন্সি হয়:

– USD/JPY: যদি এক্সচেঞ্জ রেট ১১৯.৮০০ হয়, তাহলে পিপ ভ্যালু হবে (০.০১/১১৯.৮০০) * ১০০,০০০ = $৮.৩৪ প্রতি পিপ।
– USD/CHF: যদি এক্সচেঞ্জ রেট ১.৪৫৫৫ হয়, তাহলে পিপ ভ্যালু হবে (.০০০১/১.৪৫৫৫) * ১০০,০০০ = $৬.৮৭ প্রতি পিপ।

যখন USD বেস কারেন্সি নয়:

– EUR/USD: যদি এক্সচেঞ্জ রেট ১.১৯৩০ হয়, তাহলে পিপ ভ্যালু হবে (.০০০১/১.১৯৩০) * ১০০,০০০ = €৮.৩৮। এরপর, €৮.৩৮ X ১.১৯৩০ = $৯.৯৯ প্রতি পিপ।
– GBP/USD: যদি এক্সচেঞ্জ রেট ১.৮০৪০ হয়, তাহলে পিপ ভ্যালু হবে (.০০০১/১.৮০৪০) * ১০০,০০০ = £৫.৫৪। এরপর, £৫.৫৪ * ১.৮০৪০ = $৯.৯৯ প্রতি পিপ।

ব্রোকাররা পিপ ভ্যালু ভিন্নভাবে গনণা করতে পারে, তাই যদি কোন প্রশ্ন থাকে তাহলে ব্রোকারের সাথে আলোচনা করে নেওয়া ভালো।

 

#### লট গনণা

ফরেক্স মার্কেটে লটে ট্রেড করা হয়। স্ট্যান্ডার্ড লট সাইজ হলো ১০০,০০০ ইউনিট। এছাড়াও ছোট লট সাইজে ট্রেড করা যায়:

– **স্ট্যান্ডার্ড লট:** ১০০,০০০ ইউনিট
– **মিনি লট:** ১০,০০০ ইউনিট
– **মাইক্রো লট:** ১,০০০ ইউনিট
– **ন্যানো লট:** ১০০ ইউনিট

 

Add a Comment

You must be logged in to post a comment